মানুষের আকর্ষণ

মানুষের আকর্ষণ
তৈরী হয় চারভাবে…..
শরীর….
চেহারা….
যোগ্যতা….
আর মন দিয়ে….
যে আকর্ষণ শরীর বা
যৌনতা থেকে তৈরী
হয়……
তার স্থায়ীত্ব সবচেয়ে
কম…..
বেশ কিছুদিন তা
পেলেই…
আর কোন আকর্ষণ
থাকেনা…..
এরপর হলো চেহারা….
এটার স্থায়ীত্ব শরীরের
আকর্ষণের চেয়ে বেশী…
তবে চেহারা সুন্দর
হলে….
আর সংগী বিশ্বাসী
হলে….
তার প্রতি আকর্ষণ
থেকেই যায়…..
বেশীরভাগ আকর্ষণ
এই চেহারা কেন্দ্রিক
হয়….
এরপরই টেকসই হলো
যোগ্যতার আকর্ষণ……
মানুষের যোগ্যতাও
এক ধরনের সৌন্দর্য….
যোগ্যতার জন্য যে
আকর্ষণ তৈরী হয়…..
তার স্থায়ীত্ব হয় অনেক
বেশী….
সবচেয়ে বেশী টেকসই
হলো মনকেন্দ্রিক
আকর্ষণ……
কিন্তু মনের আকর্ষণ
সহজে তৈরী হয় না….
এটির জন্য সময়ের
দরকার হয়….
অনুভুতি তৈরীর
দরকার হয়…..
এটি যেমন ধীরে
ধীরে তৈরী হয়….
তেমনি এটার স্থায়ীত্বও সবচেয়ে বেশী….
কিন্তু সব আকর্ষণই
এক সময় কমে যায়….
কেউ স্বীকার করুক
বা না করুক….
এটাই বাস্তবতা…..
তবে এর সাথে সাথে
সময়ের প্রেক্ষিতে…..
ব্যালান্সও তৈরী হয়ে
যায়…..
আকর্ষণ একসময়
গিয়ে পরিণত হয়….
অভ্যাসে…
মায়াতে….
দায়ীত্বে….
সেই অভ্যাসের
কারণে..
মায়ার কারণে…
দায়ীত্বের কারণে…
দুজন মানুষ বাকী
জীবন একসাথে পার
করে…..
এই আকর্ষণ….
অভ্যাস….
মায়া…..
দায়ীত্ব…..
সবগুলো মিলেই
একসাথে ভালোবাসা…

Leave a Reply

Quick Navigation
Facebook32
YouTube379
×
×

Cart